শীর্ষ শিরোনাম
Home » আর্ন্তজাতিক » ইহুদির সাথে সংসার জীবনে পা রাখলেন মুসলিম অভিনেত্রী লুৎফুন নাহার লতা

ইহুদির সাথে সংসার জীবনে পা রাখলেন মুসলিম অভিনেত্রী লুৎফুন নাহার লতা

সিলেট রিপোট:: সুইস বংশোদ্ভূত মার্কিন নাগরিক এবং ইহুদি ব্যবসায়ীকে বিয়ে করেছেন বাংলাদেশ টেলিভিশনের এক সময়ের সাড়া জাগানো অভিনেত্রী মুসলমানের ঘরে জস্ম নেওয়া লুৎফুন নাহার লতা। লতা দীর্ঘদিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে বসবাস করছেন। তার স্বামীর নাম মার্ক ওয়েনবার্গ। স্থানীয় সময় শুক্রবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্কের ফ্যাশিংয়ের অভিজাত ওয়ার্ল্ড ফেয়ার মেরিনায় লতা-মার্কের জমকালো বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে অভিনেত্রী লতার ঘনিষ্ঠজন ছাড়াও জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী প্রতিনিধি ড. এ কে আব্দুল মোমেন, নিউজার্সির কাউন্সিলম্যান ও বিজ্ঞানী ড. নূরন নবী এবং তার উকিল বাবা কানাডা প্রবাসী লেখক ও গণিতবিদ ড. মীজান রহমান উপস্থিত ছিলেন। শ্বশুর বাড়ির লোকজনের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শাশুড়ি পলা ওয়েন এবং নিকট আত্মীয়।
গত ১২ জুলাই ২০১৪ লুৎফুন নাহার লতার গায়ে হলুদ সম্পন্ন হয়। বাঙালি রীতি অনুসারেই শুক্রবার বিয়ের রিসেপশন অনুষ্ঠিত হয়। নিজে মুসলমানহয়ে ইহুদী স্বামী গ্রহণ করেও অনুষ্ঠানে  সবার কাছে  সুখী জীবনের জন্য দোয়া (!) চেয়েছেন লতা।

বাংলাদেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় ধারাবাহিক নাটক ‘বহুব্রীহি’ ও ‘এইসব দিনরাত্রি’তে অভিনয় করে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন লুৎফুন নাহার লতা। টিভিতে অভিনয় ছাড়াও তিনি মঞ্চে কাজ করেছেন। নাগরিক নাট্যাঙ্গণের সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৯৭ সালে লুৎফুন নাহার লতা যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান। যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকালেই সাবেক স্বামী মেজর (অব.) নাসির উদ্দিনের সঙ্গে তার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়।

লুৎফুন নাহার লতা নিউইয়র্ক সিটির বোর্ড অব এডুকেশনে চাকরি করছেন। যুক্তরাষ্ট্রে তিনি সাংস্কৃতিক অঙ্গন ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি ছিলেন। এছাড়াও তিনি বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত।্রে

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now