শীর্ষ শিরোনাম
Home » দুর্ঘটনা » লন্ডনে মাওলানা জোবায়ের হামিদি হত্যাকান্ড : খুনীর তালিকায় আপন ভাই!

লন্ডনে মাওলানা জোবায়ের হামিদি হত্যাকান্ড : খুনীর তালিকায় আপন ভাই!

সিলেট রিপোর্ট : গত মঙ্গলবার সকালে লন্ডন থেকে ১৭৫ মাইল দূরের উত্তর-পূর্ব লিঙ্কনশায়ারের গ্রিম্সবি শহরের ফ্রিম্যান স্ট্রিটের একটি বাসায় র্নিমম ভাবে খুন হওয়া বাংলাদেশি ইমাম মাওলানা জোবায়ের আহমদ হামিদির হত্যাকারী হিসাবে তার আপন ভাই জুনায়েদ হামিদিকে (২৮) সন্দেহ করছে পুলিশ!
বৃহস্পতিবার (২৩ অক্টোবর) পুলিশের বরাত দিয়ে মিডিয়াকে এ তথ্য দেন নিহত মাওলানা জোবায়েরের ছোটভাই মাওলানা সালেহ আহমদ হামিদি।
এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা কিভাবে ঘটেছে তাৎক্ষণিকভাবে তা জানাতে না পারলেও এ সময় মাওলানা জোবায়েরের ছোটভাই জুনায়েদকে আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ। হত্যাকাণ্ডের সময় জুনায়েদ ও মাওলানা জোবায়ের একই  বাসায় অবস্থান কর ছিলেন।

ঘটনার পর বিভিন্ন গণমাধ্যম এ হত্যাকাণ্ডে ‘ইসলামবিরোধী’ শক্তি জড়িত বলে সন্দেহ প্রকাশ করলেও ঘটনার সাথে নিহতের আপন ভাইকেই এখন মুল হোতাবলে অনেকেই ধারণা করছেন।
কেউ কেউ মনে করছেন, যে খুনীকে বিশেষ অপার দিয়েই এমন ঘটনাঘটানো হয়েছে।

তবে নিহত মাওলানা জোবায়েরের ছোটভাই  লন্ডনের টেলিভিশন ফান্ড রেইজিং অনুষ্ঠানের পরিচিত মুখ মাওলানা সালেহ হামিদি ভাষ্যানুযায়ী প্রাথমিক তদন্ত শেষে জোবায়ের হামিদির হত্যাকারী হিসেবে বাইরের কারো কোনো আলামত পায়নি পুলিশ। তিনি বলেন, ‘ঘটনার রাতে একই ঘরে ছিলেন নিহত জোবায়ের হামিদি ও ছোট ভাই জুনায়েদ হামিদি।’

নিহতের পরিবার জানায়, ঘরের বাইরে থেকে একটি রক্তমাখা পাঞ্জাবি উদ্ধার করেছে পুলিশ, যা সন্দেহভাজন জুনায়েদ হামিদির। ঘটনাস্থলের পাশের সড়কের সব ডাস্টবিন ও নালার আবর্জনার ফরেনসিক পরীক্ষা করার পর পুলিশ নিহতের পরিবারকে জানায় প্রাথমিক তদন্তে জোবায়ের হামিদিকেই তারা সন্দেহভাজন হত্যাকারী হিসেবে চিহ্নিত করেছেন। ইংল্যান্ডে অবস্থানরত ইসলামী নেতৃবৃন্দ বলছেন, খুনী যেই হোক আমরা দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তি চাই।
মাওলানা জুবায়ের আলম হামিদি ‘বরুনার পীর’  সিলেটের প্রখ্যাত আলেম মরহুম মাওলানা লুৎফুর রহমান বর্নভী (র:) এর সরাসরি বংশধর নয় বলে জানিয়েছেন বরুণার মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ।

মাওলানা জোবায়ের লন্ডন থেকে গ্রিম্সবিতে নিজের কেনা একটি ঘরের মেরামত কাজ তদারকির জন্য গিয়েছিলেন। সেখানেই তিনি হত্যাকাণ্ডের শিকার হন।
মাওলানা জোবায়েরের বাড়ি মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলার হামিদনগরের বরুনা গ্রামে। তিনি তিন মেয়ে ও এক ছেলের জনক। পূর্ব লন্ডনের ম্যানর পার্ক মসজিদের সাবেক ইমাম মাওলানা জোবায়ের আলম হামিদি বিভিন্ন ধর্মীয় সভা-সমাবেশের একজন নিয়মিত আলোচক ছিলেন। বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস যুক্তরাজ্য শাখার একজন নেতা হিসেবেও তিনি কমিউনিটিতে বিশেষভাবে পরিচিত।

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now