শীর্ষ শিরোনাম
Home » নারী ও শিশু » বোরকার পক্ষে দৃঢ় অবস্থান চেরি ব্লেয়ারের বোন লরেনের

বোরকার পক্ষে দৃঢ় অবস্থান চেরি ব্লেয়ারের বোন লরেনের

LARENBUTH-borka pic_113432ডেস্ক রিপোর্ট: বৃটেনের সাবেক প্রধানমন্ত্রী টনি ব্লেয়ারের স্ত্রী চেরি ব্লেয়ারের সৎবোন লরেন বুথ (৪৫)। ২০১০ সালে তিনি ধর্মান্তরিত হয়ে মুসলিম হয়েছেন। তারপর থেকে ইসলামের মূল্যবোধ যথাযথভাবে পালনের চেষ্টা করে চলেছেন।

যেসব নারী ধর্মপ্রাণ মুসলিম তাদেরকে বৃটেনে বোরকা পরতে দেয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন তিনি, যা বৃটিশ সরকারের পরিকল্পনার বিপরীত।
তিনি এমন মন্তব্য করেছেন একটি টেলিভিশন শোতে। উপস্থাপিকা তার এ মন্তব্যের পর লরেনকে উদ্দেশ্য করে বলেছেন, আপনি বাস্তব জীবন যাপন করছেন না।

লরেন বলেন, বোরকা এবং সন্ত্রাসের মধ্যে সম্পর্ক খোঁজা অপমানজনক। মুসলিম নারীকে তার ধর্মীয় বিশ্বাস চর্চা করতে দেয়া উচিত। তাকে সম্মান জানানো উচিত।

উল্লেখ্য, বৃটিশ সরকার সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোতে মুসলিম নারীদের বোরকা পরা নিষিদ্ধ করার পরিকল্পনা নিয়েছে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে লরেন ওই মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ, স্কুল, ব্যাংক এমনকি আদালতে নারীদের বোরকা পরতে দেয়া উচিত।

তবে ‘দিস মর্নিং’ অনুষ্ঠানের উপস্থাপিকা সায়রা যুক্তি দেখান, এমন কিছু প্রতিষ্ঠান রয়েছে যেখানে আগত ব্যক্তিদের পরিচিতি নিশ্চিত হতে হয় নিরাপত্তার স্বার্থে। বিশেষ করে বর্তমানে বৃটেন যেভাবে সন্ত্রাসের ঝুঁকিতে রয়েছে।

তবে লরেন বুথ তার কথার সঙ্গে একমত হতে পারেন নি। উপস্থাপিকা সায়রা খান বোরকা পরা ও সন্ত্রাসের মধ্যে সম্পর্ক টানার চেষ্টা করেছেন। এ জন্য তার তীব্র সমালোচনা করেন লরেন।

তিনি আরো বলেন, আমরা শুধু একটি অবস্থান থেকে লাফিয়ে আরেকটি অবস্থানে সরে যাই। কিন্তু সন্ত্রাস বন্ধের জন্য চমৎকার বিষয় আছে।

উপস্থাপিকা বলেন, তিনি নারীদের বোরকা পরা নিয়ে কিছু বলতে চান নি। তিনি বলতে চেয়েছেন যখন কেউ পাবলিক প্লেসগুলোতে তাদের মুখ আড়াল করে রাখে, যেমন ব্যাংকে, যেখানে তাকে সনাক্ত করার প্রয়োজনীয়তা আছে। তার এ যুুক্তির বিরুদ্ধে পাল্টা যুক্তি দাঁড় করান লরেন।

উল্লেখ্য, আইটিভির ওই শোতে ইসলামে ধর্মান্তরিত লরেন হাজির হন হিজাব পরে।

তিনি বলেন, মুসলিম নারীদের আরও নিরাপদ করতে অনেক কিছু করতে হবে। তাদেরকে বৃটিশ সমাজের অংশ করতে অনেক কিছু করার প্রয়োজনীয়তা আছে। বলেন, আমি মনে করি না যে, মুখ ঢাকা আর সন্ত্রাসের মধ্যে যোগ সূত্র খোঁজার কোন কারণ আছে।

এক পর্যায়ে সারাহ খান তাকে বলেন, আমি মনে করি না যে এটা কোন স্বাভাবিক জীবন।

জবাবে লরেন বলেন, আমি বাস্বব জীবনে আছি। আপনার সেই জীবনকে অবমাননা করার অধিকার নেই। উল্লেখ্য, ৪৫ বছর বয়স্ক লরেন বুথের প্রথম বিয়ে ভেঙে যাওয়ার পর তিনি বিয়ে করেছেন সোহেল আহমেদ (৪৯)কে। ১৬ বছর ধরে চলছে তাদের সংসার।—শীর্ষ নিউজ

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now