শীর্ষ শিরোনাম
Home » খেলাধুলা » ১৯৬ রানের বিশাল জয় শ্রীলংকার

১৯৬ রানের বিশাল জয় শ্রীলংকার

ksসিলেট রিপোর্ট: সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে বি গ্রুপের ম্যাচে বড় জয় পেয়েছে শ্রীলংকা । কানাডাকে ১৯৬ রানে হারিয়েছে তারা। অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে  শ্রীলঙ্কা-কানাড ম্যাচ দিয়ে সিলেট জেলা স্টেডিয়ামের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ভেন্যুর অভিষেক হয়েছে । ঘরোয়া ক্রিকেটে জাতীয় ক্রিকেট লীগের আইসিসির স্বীকৃত ম্যাচ ‘প্রথম শ্রেনীর ৪ দিনের ম্যাচ’ ও ‘লিস্ট এ’  ম্যাচ আয়োজন করলেও এতোদিন কোন আন্তর্জাতিক আয়োজনের অভিজ্ঞতা ছিল না ষাটের দশকে নির্মিত স্টেডিয়ামটির। অবশেষে ২৮ জানুয়ারি শ্রীলংকা-আফগানিস্তান ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ভেন্যুর স্বাদ নিয়েছে ভেন্যুটি।

গত ২ বছর মূলত ফুটবলের বিভিন্ন টুর্নামেন্ট আয়োজন করেছে স্টেডিয়ামটি।ফলে ক্রিকেট উইকেট মারাত্বক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।তাছাড়া আউটফিল্ড ক্রিকেট ম্যাচের উপযোগি ছিলনা। গত তিন মাস আগে সিলেট জেলা স্টেডিয়াম অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে ভেন্যুর তালিকায় জায়গা করে নিলে স্টেডিয়ামের মালিক ন্যাশনাল স্পোর্টস কাউন্সিল (এনএসসি) ৯৭ লাখ টাকা ব্যায়ে স্টেডিয়ামটির সংস্কার করার কাজে হাত দেয়। নতুন করে উইকেট নির্মাণ, আউটফিল্ড ক্রিকেট খেলার উপযোগি করা ছাড়াও প্রেসবক্সের আধুনিকায়ণ, ড্রেসিংরুমের সংস্কার করা হয়েছে।

টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে ৩১৫ রানের বড় সংগ্রহ করে শ্রীলংকা। তাদের হয়ে চার ব্যাটসম্যান পঞ্চাশ উর্ধ্ব ইনিংস খেলেছে।
শ্রীলংকার  ওপেনার কেভিন বানদারা ৬১ রানের ইনিংস খেলেন। তার ৮৪ বলে সাজানো ইনিংসে ছিল ৪টি বাউন্ডারি। আরেক ওপেনার আভিস্কা ফার্নান্দো করেন ১৬ রান। উদ্বোধনী জুটি থেকে আসে ৪৪ রান। দলীয় ৪৪ রানেই লঙ্কানদের দ্বিতীয় উইকেটে পতন ঘটে তিন নম্বরে নামা কামিন্দু মেন্ডিস শুন্য রানে ফিরে গেলে।

লঙ্কান দলপতি চারিথ আসালাঙ্কা করেন ইনিংস সর্বোচ্চ ৭৬ রান। তার ৬৯ বলের ইনিংসে ছিল ৯টি চারের মার। সামু আসহান অপরাজিত থাকেন ৭৪ রানে। ৬১ বলে তিনটি করে চার ও ছক্কায় তিনি তার ইনিংস সাজান। উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ভিসাদ রান্দিকা ৪৭ বলে চারটি বাউন্ডারি আর একটি ওভার বাউন্ডারিতে করেন ৫১ রান। শেষ দিকে ১৩ বলে তিনটি চার আর দুটি ছক্কায় ওয়ানিদু হাসারাঙ্গা ২৮ রান করেন।
কানাডার হয়ে দুটি উইকেট তুলে নেন আবদুল হাসিব।

৩১৬ রানের জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে রানের খাতা খোলার আগেই বিদায় নেন আনানথারাজা । বিশাল টার্গেটের বোঝার সামনে দাড়াতে পারেনি কানাডা। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে তাকে কানাডা। তাদের হয়ে সর্ব্বোচ্চ ৪২ রান করেন আরস্লান।তিনি ছাড়া বাকী ব্যাটসম্যানেরা বলার মতো রান করতে না পারলে মাত্র ১১৯ রানে অলআউট হযে যায় কানাডা।

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now