শীর্ষ শিরোনাম
Home » খেলাধুলা » শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেয়া মহৎ ও সাহসী পদক্ষেপ : আতাউর রহমান পীর

শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেয়া মহৎ ও সাহসী পদক্ষেপ : আতাউর রহমান পীর

Chowdhury Kandi Primary School  Photo -01-03-16সিলেট রিপোর্ট: মদন মোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ সিলেট এর প্রাক্তন অধ্যক্ষ ও সিলেট সেন্ট্রাল কলেজ-এর প্রিন্সিপাল বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ লে: কর্নেল (অব.) আতাউর রহমান পীর বলেছেন- আজকের শিশুরাই আগামী দিনের ভবিষ্যত। তাদেরকে আদর্শবান সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে শিক্ষার বিকল্প নেই। দেশের বিশাল জনগোষ্টী শিক্ষার সুমহান আলো থেকে বঞ্চিত রয়েছে। ব্যাক্তিগত উদ্যোগে নিরক্ষর এলাকাবাসীর সহযোগিতায় গোয়াইনঘাট উপজেলার নন্দিরগাও চৌধুরীকান্দি গ্রামে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপন করে শিশুদের শিক্ষার আলোয় আলোকিত করার মহৎ উদ্যোগ দেশের গোটা যুব সমাজের জন্য উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। সবার জন্য শিক্ষা নিশ্চিত করতে সরকারের পাশাপাশি বিত্তবানদের এগিয়ে আসতে হবে। এক্ষেত্রে আমাদের যুব সমাজকে অগ্রনী ভুমিকা পালন করতে হবে।

তিনি  মঙ্গলবার সিলেট নগরীর এক যুবকের ব্যাক্তিগত উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত ও পরিচালিত গোয়াইনঘাট উপজেলার নন্দিরগাও চৌধুরীকান্দি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাজন আহমদ সাজুর সভাপতিত্বে, অনির্বান সমাজ কল্যান সংস্থার সভাপতি তফাজ্জুল হক সুমন-এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- সোনালী স্বপ্ন বাংলাদেশ-এর সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ তোফায়েল আহমদ সেপুল, সিলেট সেন্ট্রাল কলেজ-এর পরিচালক এম. এম সোহেল, সাংবাদিক ও সংগঠক এমজেএইচ জামিল। তরুন সমাজকর্মী আবুল হাসান-এর পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত-এর মধ্য দিয়ে সুচীত অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের শিক্ষক রিপন চন্দ্র সরকার। এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে অনুভুতি ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে অভিভাবকদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট মুরব্বী আব্দুস সোবহান, জালাল মিয়া, নির্মল চক্রবর্তী, আকরাম আলী, অমুল্য সুত্র ধর, চৌধুরী কান্দি গ্রাম উন্নয়ন যুব সংঘের সভাপতি বিলাল হোসেন, সাধারন সম্পাদক সুরজান আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর হোসেন, সদস্য ইসমাইল মিয়া প্রমুখ। অনুষ্ঠানে বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মধ্যে পুরস্কার ক্রেষ্ট তুলে দেন উপস্থিত অতিথিবৃন্দ।
নেতৃবৃন্দ বলেন- অবহেলিত জনপদ নন্দিরগাও চৌধুরী কান্দি গ্রামে কোন প্রাথমিক বিদ্যালয় নেই। সিলেট শহরের এক মধ্যবিত্ত পরিবারের যুবক সাজন আহমদ সাজু তার ব্যাক্তিগত উদ্যোগে এই প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন। এলাকাবাসীর সার্বিক সহযোগিতায় সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের শিক্ষার সুমহান আলো ছড়িয়ে দিতে প্রতিষ্ঠিত বিদ্যালয় নানা সংকট প্রতিবন্ধকতা সত্ত্বেও তার অগ্রযাত্রা অব্যাহত রেখেছে। ১২০ জন শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার জন্য মাত্র ২জন শিক্ষক । আর বসবার জন্য রয়েছে চটের বস্তা। তবুও শিক্ষার আলো পেয়ে উদ্ভাসিত শিশুরা। তাদের অভিভাবকরাও স্বপ্ন বুনেছেন। এই বিদ্যালয়টি বসার স্থান, বই পত্র সংগ্রহ সহ যাবতীয় কাজ করে যাচ্ছেন নগরীর চৌকিদেখি এলাকার মধ্যবিত্ত পরিবারের যুবক সাজন আহমদ সাজু। শিক্ষার সুমহান আলো ছড়িয়ে দেওয়ার মহতি কাজে বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান উপস্থিত নেতৃবৃন্দ ও এলাকাবাসী।

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now