শীর্ষ শিরোনাম
Home » শীর্ষ সংবাদ » ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে যা বললেন সাবেক এমপি শাহীনূর পাশা চৌধুরী

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে যা বললেন সাবেক এমপি শাহীনূর পাশা চৌধুরী

pasaসিলেট রিপোর্ট: ইউপি নির্বাচনে ভোট চুরি, বিরোধী প্রার্থীদের নানা ভাবে হেনস্তা,হামলা-মামলার ভয়,কেন্দ্র দখন সর্বোপরি ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থিতার কারণে  খুনোখুনির আশঙ্কা করা হচ্ছিল বিভিন্ন মহলে। আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু হতে না হতেই দেশের বেশ কয়েক স্থানে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সর্বশেষ সোমবার পটুয়াখালীতে বাউফলে সংঘর্ষে নিহত হয়েছেন ইউপি স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি। প্রথম ধাপের ৭২৬টি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের মধ্যে তিন শতাধিক ইউপিতে বিদ্রোহী প্রার্থীর মোকাবেলা করতে হচ্ছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগকে।  এছাড়া অনেক ইউনিয়নে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় চেয়ারম্যান হতে যাচ্ছেন। সব মিলিয়ে সংঘর্ষ-সহিংসতার আশঙ্কা দিন দিন বাড়ছে। মামলা,গুমের আশংকা ও উড়িয়ে দেয়া যাচ্ছেনা। বিরোধী দলীয় অনেক যোগ্য লোক সরকারদলীয় ক্যাডারদের ভয়ভিতির কারনে,হামলা মামলার কারনে অনেকেই মনোনয়নপত্র দাখিল করতে পারছেননা বলে অভিযোগ উঠেছে। দেশে প্রথমবারের মতো দলীয় প্রতীকে ইউপি নির্বাচন হচ্ছে। ২২ মার্চ প্রথম দফা ইউপি নির্বাচনের ভোট নেয়া হবে। ইতিমধ্যে চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা ও প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়ে গেছে। এখন চলছে প্রচারণা। এবিষয়ে সিলেট রিপোটের সাথে কথা বলেছেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় যুগ্মমহাসচিব,২০ দলীয় জোটের র্শীষ নেতা সুনামগঞ্জ-৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য এডভোকেট মাওলানা শাহীনুর পাশা চৌধুরী। সিলেট বিভাগের আলোচিত এক নেতা। হেফাজতে ইসলামের আন্দোলনে সক্রিয় ভুমিকা পালন করেন। এছাড়া ২০০৫ সালে মাওলানা মুহিউদ্দীন খানের সাথে টিপাইমুখ বাঁধ বিরোধী ঐতিহাসিক লংমার্চের সময় শাহীনুর পাশা সিলেটে নেতৃত্বদেন। ৪ দলীয় জোটের আমলে সংসদ সদস্য থাকাকালে বিভিন্ন দাবী দাবা আদায়ের আন্দোলনে সক্রিয় ভুমিকা পালন করেন তিনি। সিলেট বিভাগের ইসলামী ধারার রাজনীতিতে এখন শাহীনুর পাশার বিকল্প নেই। হেফাজতে ইসলামের পরে সিলেট বিভাগসহ সারা দেশে তার সংগঠন জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের এখন ব্যাপক কর্মতৎপরতা চলছে। সবমিলিয়ে জোটের রাজনীতিতে ও শাহীনুর পাশা ও জমিয়ত বিশাল ফ্যাক্টর। তিনি আসন্ন ইউনিয়ন নির্বাচনে সহিংসতার আশঙ্কা করছেন।
সিলেট রিপোর্ট: প্রথম ধাপে আপনার দল কয়টি ইউনিয়নে প্রার্থী দিয়েছে ?
শাহীনুর পাশা : দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে বিপুল সংখ্যক প্রার্থী খেজুর গাছ প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। আমরা পরিবেশ-পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি, কারন সরকার অদৌ নির্বাচন করবে নাকি ৫ জানুয়ারীর মতো তামাশা করবে বিষয়টি এখনো পরিস্কার নয়। তবে প্রাথমিক ভাবে দলের পক্ষ থেকে সিলেট সদর উপজেলার ৪ নং খাদিম পাড়া ইউনিয়নে মুফতি জাকারিয়াকে খেজুর গাছ প্রতীকে দলীয় মনোনয়ন প্রদান করা হয়েছে।
সিলেট রিপোর্ট: এখানে আপনার দল কতটুকু আশাবাদী ?
শাহীনুর পাশা : সুষ্টুনির্বাচন হলে আমরা শতভাগ আশাবাদী ইনশাআল্লাহ । কারণ বিগত উপজেলা নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যানপদে জমিয়ত প্রার্থী এই ইউনিয়নে (সম্মান জনক ভোট) নির্বাচিত হয়েছেন। এখানকার ভোটাররা উলামায়ে কেরামকে অত্যন্ত ভাল বাসেন সঙ্গত কারনেই আমি শতভাগ আশাবাদী।
সিলেট রিপোর্ট: আপনার দল বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটে আছেন ,  জোটগত ভাবে আপনার দলকে কয়টি ইউনিয়নে ছাড় দিবে ?শাহীনুর পাশা চৌধুরী: দেখুন -আমি আগেই বলেছি-সরকার আসলেই নির্বাচন করবে নাকি ইউনিয়ন পরিষদ দখলের জন্য নির্বাচনের বাহানা করছে , এটা এখনো পরিস্কার নয়। জোট ও আমার দল নির্বাচনে অংশ নেওয়া জন্য সবধরনের প্রস্তুতি রেখেছে। সময় সাপেক্ষে সিদ্ধান্ত নেবেন নেতৃবৃন্দ। আমি আশাবাদী যে জোটগত ভাবে নির্বাচনে প্রার্থী দিয়ে জাতীয়তাবাদী,ইসলামী শক্তির ভিত আরো যেন মজভুত হয়।
এবিষয়ে অচিরেই র্শীষ নেতৃবৃন্দ যুগান্তকারী সিদ্ধান্তে উপনিত হবেন।
সিলেট রিপোর্ট: শুনেছি আপনি নাকি (বর্তমানে ইংল্যান্ডেঅেবস্থানরত) বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সাথে সাক্ষাত করেছেন ?
শাহীনুর পাশা চৌধুরী: না,আপনাদের শুনাটা সঠিক নয়।  জনাব তারেক রহমানের সাথে এ যাত্রায় আমার কোন সাক্ষাত হয়নি। তবে আমি যেতুহে যুক্তরাজ্যে অবস্থানকরছি তাই আমাদের দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থীদের কয়েকজন আমাকে তারেক রহমানের সাথে জোটবদ্ধ ভাবে নির্বাচনের বিষয়টি আলোচনার জন্য পরামর্শ দিয়েছেন। অনেকেই ফোনে,কেউ কেউ ফেসবুকে এটা বলেছেন।  প্রকৃত পক্ষে আমি রাজনৈতিক কোন সফরে লন্ড আসিনি,এসেছি -জামিয়া দারুল কোরআন সিলেটের জন্য বিশেষ সফরে।
এছাড়া আমি নিজ দলীয় ফোরামে আলোচনা ব্যতিত তারেক রহমানের সাথে কোন ধরনের বৈঠকের প্রশ্নই উঠেনা।
সিলেট রিপোর্ট: ইউনিয়ন নির্বাচনের পরবর্তী ধাপ গুলোতে আপনার দলের প্রার্থীর কয়জন ?
শাহীনুর পাশা : আমি যেতুতে এখন সফরে আছি,মোবাইলে সবকিছু বলা যাবেনা। এবিষয়ে বিস্তারিত ব্রিফিং দিবেন আমাদের মহাসচিব দেশ বরেন্য আলেম আল্লামা নুর হোসাইন কাসেমী এবং সাংগঠনিক সম্পাদক শায়খুল হাদীস উবায়দুল্লাহ ফারুক। শুধু এতো টুকু বলতে পারি যে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে বিপুল সংখ্যক চেয়ারম্যান প্রার্থীর তালিকা কেন্দ্রে জমাহয়েছে। অবস্থাবুঝে এসব যাচাই বাছাইকরে প্রার্থীতা ঘোণা করা হবে।
সিলেট রিপোর্ট: ইউনিয়ান নির্বাচনের সার্বিক বিষয়ে আপনার ধারনা কী ?
শাহীনুর পাশা: কিছুই বলতে পারছিনা, তবে নির্বাচনের স্বচ্চতা নিয়ে সংশয়-সন্ধেহ থেকেই যাবে ! যেমন ভাবে সরকারের উপর জনগনের আস্থা নেই তেমনি এই ইলেকশন কমিশনের উপওি জনগনের কোন প্রকার বিশ্বাস নেই। সময়েই বলে দেবে আমরা কি করবো ?
সিলেট রিপোর্ট: সময় দেয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

শাহীনুর পাশা:  আপনাকে ও ধন্যবাদ।
Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now