শীর্ষ শিরোনাম
Home » সিলেট » সাংবাদিক নুরুল ইসলাম‘র মাতাকে দেখতে যান মেয়র আরিফ

সাংবাদিক নুরুল ইসলাম‘র মাতাকে দেখতে যান মেয়র আরিফ

সিলেট পেশাজীবি পরিষদ‘র সদস্য সচিব সাংবাদিক নুরুল ইসলাম‘র মাতাকে দেখতে গতকাল সিলেট উইমেন্স মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যান সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। এসময় তিনি   মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডাঃ জামাল আহমদ চৌধুরীর কাছ থেকে তার চিকিৎসার সর্ব শেষে খোজ খবর নিন এবং তার আশু রোগ মুক্তি কামনা করেন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক বণিক বার্তা‘র সিলেট প্রতিনিধি আলী আকবর চৌধুরী, সিলেট টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ স্টুডেন্ট ফোরাম‘র সভাপতি ছাত্রনেতা নজমুল ইসলাম, সুমন আহমদ ও মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সিকিউরিটি সুপারভাইজার মিনহাজ আহমদ। এদিকে সাংবাদিক নুরুল ইসলামের মাতাকে দেখতে যান সিলেট মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হাজী আব্দুল কাইয়ুম জালালী পংকী, সিলেট পেশাজীবি পরিষদ‘র আহবায়ক লেঃ কর্ণেল আতাউর রহমান পীর, দক্ষিণ সুরমার বিশিষ্ট সমাজ সেবক মোঃ নুর উদ্দিন, লিডিং ইউনিভাসিটি‘র প্রভাষক রুমেল এম এস পীর, সোনালী স্বপ্ন বাংলাদেশের ভাইস চেয়ারম্যান আশরাফ গাজী, মহানগর বিএনপি নেতা লল্লিক আহমদ চৌধুরী, মির্জা বেলায়েত আহমদ লিটন, মহানগর ছাত্রদলের সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক লোকমান আহমদ, জগন্নাথপুর ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জ জাতীয়তাবাদী ফোরাম‘র সভাপতি ও ইলিয়াস মুক্তি ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ‘র যুগ্ম আহবায়ক চৌধুরী মোহাম্মদ সুহেল, ফোরাম‘র সাধারণ সম্পাদক ও মহানগর ছাত্রদলের স্কুল বিষয়ক সম্পাদক এমদাদুল হক স্বপন, ইমতিয়ার হোসেন আরাফাত, মুহিবুর রহমান শিপলু, আলী আকবর রাজন নাজিম আহমদ, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন সিলেট মহানগর শাখার সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান, কলামিষ্ট সৈয়দ বদরুল আলম, ফেঞ্চুগঞ্জ এনজিএফ সি আই বি কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য দিদারুল হাসান সিহাব, মানবাধিকার কর্মী শফি আহমদ, সুনামগঞ্জ সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক পিযুষ রঞ্জন পুরকাস্থত, যুব পদক প্রাপ্ত আলী আহসান হাবীব, শাহ আলম, নাঈমুল ইসলাম, ছমির উদ্দিন ফোরাম‘র সহ-সভাপতি সাদেক আহমদ জিতু, যুগ্ম সম্পাদক আল আমিন, সহ-সাংগঠনিক সালাহ উদ্দিন সুমন, সাংগঠনিক সম্পাদক ও মদন মোহন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদল নেতা জহিরুল ইসলাম আলাল, প্রচার সম্পাদক জুনেদ আহমদ এল এল বি, যুবদল নেতা নেওয়ার আলী প্রমুখ।

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now