শীর্ষ শিরোনাম
Home » মৌলভীবাজার » কুলাউড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্মকর্তার অবহেলায় শিশুর মৃত্যু

কুলাউড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্মকর্তার অবহেলায় শিশুর মৃত্যু

21384কুলাউড়া প্রতিনিধি:কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার অবহেলায় হামিদা বেগম নামে দেড় মাস বয়সের  এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার বিকেল ৪টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে।

জানা যায়, জুড়ী উপজেলার উত্তর সাগরনাল গ্রামের শহিদুর রহমানের মেয়ে হামিদা বেগম গত শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মহিলা ওয়াডের্র ১নং বেডে ভর্তি হয়। পরদিন সকাল ৯টার দিকে ওয়ার্ডে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহা. মিজানুর রহমান রোগী দেখতে আসেন। রোগী দেখার এক পর্যায়ে ১নং বেডে ভর্তি থাকা শিশু হামিদার পাশে মামী তাহমিনা আক্তার থাকায় তিনি উত্তেজিত হয়ে হামিদাকে না দেখে চলে যান।

এসময় হামিদার মা মনোয়ারা বেগম অনেক অনুরোধ করলে ডা. মিজানুর সাড়া দেননি। ওইদিন বিকেল ৪টায় হাসপাতালের ভিতরে তার প্রাইভেট চেম্বারে টাকার বিনিময়ে হামিদাকে দেখেন। সোমবার ঘটনার দিন বিকেলে তার আবারও খিচুনী উঠলে হামিদা মারা যায়।

রোগীর মামী তাহমিনা আক্তার অভিযোগ করে বলেন, রোববার সকালে ওয়ার্ডে ডা. মিজানুর রোগী দেখতে আসলে হামিদা মায়ের বুকের দুধ খেতে পারছে না জানালে তিনি তাঁর ওপর ক্ষেপে ওঠেন এবং রোগী না দেখেই সেখান থেকে চলে যান। পরে বিকেলে উনার প্রাইভেট চেম্বারে নিয়ে ২ শ টাকা ভিজিট দিয়ে হামিদাকে দেখানো হয়।

তিনি আরও বলেন, রোগীর অবস্থা যদি খারাপ হয় তাহলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য মৌলভীবাজার ও সিলেটে রেফার্ড করে দেওয়ার জন্য ডা. মিজানুরকে অনুরোধ করেন।

সর্বশেষ সোমবার সকালে হামিদার মুখ ফুলে যাওয়ায় আবারও তাকে রেফার্ড করে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেন। কিন্তু তিনি রেফার্ড না করে বলেন রোগীর কোন সমস্যা নেই সে সুস্থ আছে। বিকেল ৪টার দিকে হামিদা’র আবারও খিচুনী উঠলে ওয়ার্ডে কোন কর্তব্যরত চিকিৎসক না থাকায় হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে গেলে সেখানকার ডাক্তাররা বলেন তাকে মিজানুর স্যারের কাছে নিয়ে যান। ওই সময়ই সে মারা যায়।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহা. মিজানুর রহমান বলেন, হামিদা নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়। রোগীর পাশে অতিরিক্ত লোক থাকলে রোগী দেখতে সমস্যা হয় তাই তার পাশে মামী থাকায় আমি তাকে (হামিদাকে) দেখিনি।

তিনি বলেন, রোগী দেখার সময় অতিরিক্ত কোন লোক সেখানে  থাকলে রোগী দেখার নিয়ম নেই।

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now