শীর্ষ শিরোনাম
Home » বিভিন্ন জেলা-উপজেলা » ওসমানীনগরে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ, মহিলা গুলিবিদ্ধ

ওসমানীনগরে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ, মহিলা গুলিবিদ্ধ

23-300x113সিলেট রিপোর্ট ডটকম: ওসমানীনগর উপজেলার গোয়ালাবাজার ইউনিয়নের দুই গ্রামবাসীর মধে সংঘর্ষ এক মহিলা গুলিবিদ্ধ হয়েছে। আহত মহিলাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল হাসপাতাল ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এলাকায় টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা জায়, শুক্রবার বিকাল সাড়ে তিনটার দিকে উপজেলার গোয়ালাবাজার ইউনিয়নের কচপুরাই গ্রামে একটি চোরাই প্রাইভেট কার (নং ঢাকা মেট্রো গ ১২-৪৯৬৭) এলাকাবাসী আটক করেন। চোরাই কার আটক করাকে কেন্দ্র করে একটি পক্ষ কচপুরাই ও ইসবপুর গ্রামের লোকজনকে গালিগালাজ করে।

এক পর্যায়ে দুই গ্রামবাসীর লোকজন কচপুরাই গ্রামের গেদা মিয়ার সাথে সংঘর্ষ সৃষ্টি হয়। সংঘর্ষে উভয় পক্ষে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অর্ধ ঘন্টা এক পক্ষ অপর পক্ষকে ডাকা ডাকী করে। এসময় বন্ধুক দিয়ে ৩ রাউন্ড গুল্লি ছুড়া হয়।

এতে কচপুরাই গ্রামের সিএনজি অটোরিকশা চালক আবুল বশর হুক্কা’র স্ত্রী মনি বেগম (৪৫) গুল্লিবৃদ্ধ হয়েছে। খবর পেয়ে বিকাল ৪টার দিকে ওসমানীনগর থানার এস আই রমাপ্রসাদ একদল পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছার পর গেদা মিয়ার বাড়ির পশ্চিম দিকে আরো এক রাউন্ড গুল্লি করা হয়।

এসময় ঘটনাস্থলে গোয়ালাবাজার ইউনিয়নের সতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মানিক মিয়ার সমর্থনে ঘোড়ার মিছিল দেওয়া হয়। পরে ঘটনাস্থলে থানা থেকে পর্যাপ্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। পরবর্তীতে ঘটনাটি নির্বাচনী সংঘর্ষে রুপ নেয়। থানা পুলিশ চোরাই প্রাইভেট কার আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

এ ব্যাপারে ওসমানীনগর থানার এস আই রমাপ্রসাদ বলেন, একটি চোরাই কার নিয়ে দুই জনের বাকবিতন্ডা এক পর্যায়ে সংঘর্ষে রূপ নেয়।

পুলিশ জানিয়েছে বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। এখন পর্যন্ত কোন পক্ষই থানায় লিখিত অভিযোগ নিয়ে আসেনি।

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now