শীর্ষ শিরোনাম
Home » রাজনীতি » জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা : লিভ টু আপিল শুনানি ১ আগস্ট

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা : লিভ টু আপিল শুনানি ১ আগস্ট

Khaleda-2_0-300x194
ডেস্ক রিপোর্ট:
জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা স্থগিতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার করা লিভ টু আপিলের (আপিলের অনুমতি চেয়ে আবেদন) শুনানির জন্য ১ আগস্ট দিন ধার্য করেছে আদালত।

বৃহস্পতিবার শুনানির জন্য এ দিন ধার্য করেন বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দারের আদালত।

বিএনপি চেয়ারপারসনের আইনজীবী ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদল জানান, গত ৩১ মে আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় খালেদা জিয়ার পক্ষে এ আবেদন করেন তার অপর আইনজীবী ব্যারিস্টার রাগীব রউফ চৌধুরী।

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০০৫ সালে কাকরাইলে সুরাইয়া খানমের কাছ থেকে ‘শহীদ জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট’-এর নামে ৪২ কাঠা জমি কেনা হয়। কিন্তু জমির দামের চেয়ে অতিরিক্ত এক কোটি ২৪ লাখ ৯৩ হাজার টাকা জমির মালিককে দেওয়া হয়েছে বলে কাগজপত্রে দেখানো হয়, যার কোনো বৈধ উৎস ট্রাস্ট দেখাতে পারেনি। জমির মালিককে দেওয়া ওই অর্থ ছাড়াও ট্রাস্টের নামে মোট তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা অবৈধ লেনদেনের তথ্য পাওয়া গেছে।

২০১০ সালের ৮ আগস্ট জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে অর্থ লেনদেনের অভিযোগ এনে খালেদা জিয়াসহ চারজনের নামে তেজগাঁও থানায় দুর্নীতির অভিযোগে এ মামলা করেছিলেন দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী পরিচালক হারুন-অর-রশিদ।

ঢাকার বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে স্থাপিত বিচারক আবু আহমেদ জমাদারের অস্থায়ী বিশেষ আদালতে মামলার কার্যক্রম চলছে।

মামলার অপর অভিযুক্তরা হলেন খালেদা জিয়ার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, হারিছের তখনকার সহকারী একান্ত সচিব ও বিআইডব্লিউটিএর নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকার সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান।

গত, ১৭ এপ্রিল তদন্ত কর্মকর্তাকে জেরা ও পুনরায় সাক্ষ্যগ্রহণ সংক্রান্ত আবেদন দুটি খারিজ করে দেন বিচারিক আদালত। ওই আদেশের বিরুদ্ধে ১৮ এপ্রিল হাইকোর্টে রিভিশন আবেদন করেন খালেদা জিয়া। আবেদনে মামলার কার্যক্রমও স্থগিত চাওয়া হয়।

এই মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে জেরা ও পুনরায় সাক্ষ্য গ্রহণ সংক্রান্ত দুটি আবেদন নিম্ন আদালতে খারিজ হয়। পরে ওই আদেশের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়া দুটি রিভিশন আবেদন করেন হাইকোর্টে। গত ১৫ মে হাইকোর্টের একটি ডিভিশন বেঞ্চ খালেদা জিয়ার রিভিশন আবেদন দুটি খারিজ করে দেন। পরবর্তী সময়ে গত ৩১ মে লিভ টু আপিলের আবেদন করেন খালেদা জিয়া।

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now