শীর্ষ শিরোনাম
Home » রাজনীতি » খালেদার কারনে এনপিপির ইফতার বুকিং বাতিল

খালেদার কারনে এনপিপির ইফতার বুকিং বাতিল

jonডেস্ক রিপোর্ট: আদালতের নিষেধাজ্ঞার কারণে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোটের শরিক ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) ইফতার মাহফিলের বুকিং বাতিল করেছে সোনারগাঁও হোটেল কর্তৃপক্ষ। আজ  রবিবার এই ইফতার অনুষ্ঠান হওয়ার কথা ছিল। ইফতারে প্রধান অতিথি হিসেবে বিএনপির চেয়ারপারসন ও  জোটের প্রধান বেগম খালেদ জিয়ার উপস্থিত থাকার কথা ছিল।
রবিবার দুপুরের দিকে হোটেলের পক্ষ থেকে এনপিপিকে তাদের বুকিং বাতিলের কথা জানিয়ে দেয়া হয়।  সোনারগাঁও হোটেলের হেড অব ক্যাটারিং মো. আজিম  বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

আজিম জানান, “আজ  বেলা ১১টার দিকে রমনা থানার ওসি (তদন্ত) আমাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। তিনি জানান, এনপিপির অনুষ্ঠান না করার ব্যাপারে উচ্চ আদালতের নিষেধ্বাজ্ঞা রয়েছে। তাই অনুষ্ঠান করা যাবে না। পরে আমরা এনপিপিকে তাদের বুকিং বাতিলের কথা জানিয়ে দিয়েছি।”

এদিকে জানা গেছে, এনপিপির চেয়ারম্যান শেখ শওকত হোসেন নিলু ২০-দলীয় জোট ছাড়ার পর মহাসচিব অ্যাডভোকেট ফরিদুজ্জামান ফরহাদ এর হাল ধরেন। তিনি নিজেকে চেয়ারম্যান ঘোষণা করে জোটের সঙ্গে থেকে যান। পরে নিলু-ফরহাদ দুজনই নিজেদের এনপিপির শীর্ষ নেতা বলে দাবি করে আসছেন।

জানা গেছে, গত বছর ফরিদুজ্জামান ফরহাদ সোনারগাঁও হোটেলে এনপিপির ইফতার অনুষ্ঠান করলেও এবার তাতে আপত্তি জানান নিলু। তিনি ফরহাদের নেতৃত্বাধীন এনপিপির কার‌্যক্রম বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে আদালতে আবেদন করেন। গত বুধবার (১৫ জুন) ঢাকার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম দেবদাস চন্দ্র অধিকারী এ ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। তাতে বলা হয়, শেখ শওকত হোসেন নিলু ও আবদুল হাই মণ্ডল ছাড়া অন্য কেউ এনপিপির নামে কোনো কর্মসূচি আয়োজন করতে পারবেন না।

নিষেধাজ্ঞার কারণে পরে এনপিপির বদলে ব্যক্তি ফরহাদের সৌজন্যে ইফতারের আয়োজন করার কথা বলা হলেও শেষ পর‌্যন্ত তাও বাতিল হয়ে যায়।

এ বিষয়ে ফরিদুজ্জামান ফরহাদ ঢাকাটাইমসকে বলেন, হোটেল কর্তৃপক্ষ বুকিং বাতিল করেছে সেটা জেনেছি। তবে কী কারণে বাতিল করেছে সেটা আমাদের বলা হয়নি। আমরা মনে করি, এটা সরকারের একটি ষড়যন্ত্র।

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now