শীর্ষ শিরোনাম
Home » কলাম » আলোচিত-সমালোচিত সেই ফতোয়া সম্পর্কে জিয়া রাহমান’র অনুভূতি

আলোচিত-সমালোচিত সেই ফতোয়া সম্পর্কে জিয়া রাহমান’র অনুভূতি

imagesসিলেট রিপোর্ট: জিয়া রাহমান সোস্যাল মিডিয়ায়র এক পরিচিত নাম। তিনি একজন দক্ষআলেম,ইমাম। সম্প্রতি সরকারপন্থী আলেম হিসেেপেরিচিত মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসউদের বহুল আলোচিত ফতোয়া সম্পর্কে ফেসবুকে তার প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। সিলেট রিপোর্ট ডটকম এর পাঠকদের জন্য তা হুবহু তুলে ধরা হলো:
১. পবিত্র কুরআনের অকাট্য ফরয বিধান ‘জিহাদ’ শুধু মুসলমানদের মুখে মুখে নয়, কাফির, মুশরিক আর তাগুতদের মুখে মুখেও আজ ‘জিহাদ, জিহাদ’ রব উঠেছে৷ যে শব্দটি এই উম্মত ভুলে বসতে যাচ্ছিল৷ যে শব্দটির সঙ্গে তাগুতপাড়ার হৃদকম্পন অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত, সেই হৃদকম্পন থেমে গিয়েছিল৷

২. ফতোয়া৷ ইসলামবিদ্বেষী বাম, রাম, নাস্তিক, মুরতাদদের এলার্জির অন্যতম কারণ৷ যে শব্দকে তারা কখনোই সহ্য করতে পারত না৷ আজ তাদের মিডিয়ায়ই শিরোনাম হচ্ছে, ‘ফতোয়া’৷ এই মিডিয়ার অপপ্রচারেই যে ফতোয়ার বিরুদ্ধে রায় এলো, নিজেদের স্বার্থের অনুকুলে হলেও সেই মিডিয়াই আজ ফতোয়াকে প্রমোট করছে বিশ্বব্যাপী৷
খারাপ নাহ, আল্লাহই সর্বোত্তম কৌশলী৷

৩. সর্বশেষ বিশেষজ্ঞ আলেমরাই কেবল ফতোয়া দেয়ার অধিকার রাখেন মর্মে আদালত কর্তৃক যে রায় এসেছিল, এই ফতোয়ায় সেই রায়ের নির্দেশনা অমান্য করার কারণে (যেহেতু স্বাক্ষরকারী সবাই বিশেষজ্ঞ আলিম নন) মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসউদ সাহেবের অভিযুক্ত হওয়াও বিচিত্র কিছু মনে করি না৷ কারণ ইসলামের নির্দেশনাও হচ্ছে, বিশেষজ্ঞরাই কেবল ফতোয়া দিবেন৷ পাশাপাশি সেই অনুকূলে দেশীয় আদালতেরও রায় রয়েছে৷ ইসলামের নির্দেশনা অমান্য করলেও আদালতের রায় অমান্য করে ছাড় পাওয়া তো কঠিন বিষয়৷

৪. আলোচিত-সমালোচিত ওই ফতোয়ায় মাওলানা ফরীদ উদ্দীন মাসউদ বলেন, “জিহাদ আর সন্ত্রাস একই জিনিস নয়, বরং সন্ত্রাস হারাম ও অবৈধ”। তিনি এও বলেন, “জিহাদ ইসলামের ফরয ইবাদত”৷ মাশা আল্লাহ খুব সুন্দর কথা৷ তবে একটি বিষয়- যেহেতু হাদীসে এসেছে, জিহাদ কিয়ামত পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে৷ তাহলে বুঝা গেলো এই মুহূর্তেও জিহাদ চলছে পৃথিবীর কোথাও না কোথাও৷ ১৯ খণ্ডের ওই বিরাট কলেবরের ফতোয়ায় যদি মুহতারাম স্পষ্ট করে দিতেন, বর্তমানে জিহাদের সঠিক চর্চাটা কোথায় হচ্ছে? তাহলে মানুষ ধূম্রজাল থেকে বাঁচতো৷ ফতোয়াটিও আরেকটু সমৃদ্ধ হতো৷

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now