শীর্ষ শিরোনাম
Home » প্রবাস » হাইড ইসলামী অর্গেনাইজেশন কমিটির তাফসির সম্পন্ন

হাইড ইসলামী অর্গেনাইজেশন কমিটির তাফসির সম্পন্ন

13886226_1792127777672712_5123708179827280500_n
সিলেট রিপোর্ট: হাইড ইসলামী অর্গেনাইজেশন কমিটি কর্তৃক আহুত ৫ তম তাফসিরুল কোরআন মাহফিলে ৩ আগষ্ট সংগঠনের সভাপতি আলহাজ ক্বারী খালিদুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।
মাওলানা‬ আব্দুল কাইয়ূম কামালীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মাহফিলে  প্রধান অথিতির বক্তব্য রাখতে গিয়ে শাইখুল হাদিস হযরত মাওলানা হাফিজ ‪তাফাজ্জুল‬ হক মুহাদ্দিছে হবগন্জী বলেন, আমরা যেমন কোরআন মানি হাদিস শরিফ ও মানি । কেউ কোরআন না মানলে যেমন কাফির হাদিস না মানলে তেমনি কাফের। কিন্তু সব হাদিসের উপর আমল করা সম্ভব নায় যেমন আল্লাহর রাসুল ১১ শাদি করেছেন আমরা তা পারবনা, চাঁদ দ্বিখন্ডিত করেছেন আমরা তা পারবনা । ঘুমথেকে উটে নামাজ পড়েছেন পড়িয়েছেন আমরা তা পারবনা এরকম অনেক হাদিস আছে যা আমাদের জন্য আমল করা সম্ভব নয়। তাই হাদিসের দোহাই দিয়ে মাজহাব পরিত্যাগ করা গোমরাহি ছাড়া আর কিচুই নেই।
‎প্রধান‬ বক্তার বক্তব্য রাখতে গিয়ে শাইখুল হাদিস হযরত মাওলানা ‪বিলাল‬ বাওয়া (দারুল উলুম বেরী মাদ্রাসা) বলেন ইসলাম শান্তির ধর্ম এতে মারামারী হানাহানীর স্তান নেই। মুসলমানরা শান্তি প্রিয় কিন্তু আজকাল মুসলমানদের দেখলে মানুষ ভয় পায় তার কারণ হলো আমরা আমাদের আদর্শ থেকে দুরে এসে গেছি। এখন আমাদের প্রোয়োজন কোরআন হাদিসের আদর্শ সটিক ভাবে ধারণ করে মানুষের আস্তা ফিরিয়ে আনা যাতে মানুষ মুসলমানদের দেখলে নিরাপদ ভাবে।

‪শাইখুল‬ হাদিস হাফিজ হযরত মাওলানা ‪ওলিউর‬ রহমান বর্নবী বলেন আল্লাহর কাছে নিজেকে সপে দেওয়ার নামই হলো ঈমান। এক্ষেত্রে তিনি ছুরায়ে চোয়াফফাতের ১০০ নাম্বার আয়াত থেকে তাফসীর করতে যেয়ে হযরত ইব্রাহিম আঃ হযরত ইসমাঈল আঃ এর কোরবানীর ঘটনা উল্লেখ করে তিনি বলেন যেমন ভাবে তাঁরা কোনো প্রশ্ন ছাড়াই আল্লাহর হুকুম পালন করতে নিজেদেরকে সপে দিয়েছিলেন তেমনি ভাবে আমাদেরকে বিনা প্রশ্নে আল্লাহর বিধি বিধান মানতেহবে তাহলেই আমরা হবো মুসলমান তথা ঈমানদার অন্যথায় নয়।
বিশেষ অতিথির বক্ত্যবে  মাওলানা জুনায়েদ আল হাবিব বলেন, রাসুল (সাঃ)
রান্না-বান্না করতে উম্মুল মুমিনিনদেরকে সহযোগিতা করেছেন, ঘর ঝাড়ু দিয়েছেন, কাপড় সেলাই করেছেন, কাজ করেছেন,দুশমনদের সাথে ভাল ব্যবহার করেছেন। মক্কা বিজয়ের পরে যখন সব কিচু তার অধিনে আসলো তখন সমস্ত দুশমনদেরকে ক্ষমা করে দেওয়া , তাদেরকে সাহায্য করা ক্বাবা ঘরের চাবি পুর্বে যার কাছে ছিলো তার কাছে ফেরত দেওয়া এমনকি যতসব গুণ আছে সবগুণের অধিকারী ছিলেন আমাদের প্রিয় রাসুলে কারীম সাঃ।
যাহাতে তাহার উম্মত কোনো কাজকে ছোট কিংবা বড় মনে না করে এবং ক্ষমা ছবর ধর্য্য ধারণ করে সর্বক্ষেত্রে রাসুল সাঃ এর আদর্শ পরিপুর্ণ ভাবে পালন করে আর তাতেই আমাদের নাজাত অন্যথায় নয়। তাইতো রাসুল (সাঃ) এর আদর্শ বিশ্ব মানবতার মুক্তির সনদ।
‎সভায়‬ আরে বক্তব্য রারেখেন বিশিস্ট ইসলামী চিন্তাবিদ হযরত মাওলানা ‪#‎শেখ‬ আবুতাহের ফারুকী (লিডস)। বিশিস্ট‬ ইসলামী চিন্তাবিদ হযরত মাওলানা হাফিজ সৈয়দ ‪ জুনায়েদ‬ আহমদ (রচডেল)। বিশিস্ট ইসলামী চিন্তাবিদ হযরত‬ মাওলানা মুফতি জুনায়েদ আহমদ প্রিন্সিপাল আলহুদা একাডেমী ( ওল্ডহাম ইউকে) দারুল কোরআন বানিয়াচন্ঙ বাংলাদেশ। সভায় উপস্তিত ছিলেন হাইড সহ গ্রেটার মানচেস্টারের ধর্মপ্রান মুসলমান এবং কমিউনিটি নেতৃবূন্দ।

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now