শীর্ষ শিরোনাম
Home » দুর্ঘটনা » বাহরাইনে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরনে মৌলভীবাজারের সাজ্জাদ নিহত

বাহরাইনে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরনে মৌলভীবাজারের সাজ্জাদ নিহত

13956974_1070577256362562_2011000678_nমধ্যপ্রাচ্য প্রতিনিধিঃ বাহরাইনে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে ১ জন নিহত ও ৬ জন বাংলাদেশী গুরুতর আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে । জানা যায়, ৬ আগষ্ট শনিবার স্থানীয় সময় আনুমানিক দুপুর দেড়টার দিকে বুরি নামক স্থানে শ্রমিকদের বাসস্থানে গ্যাস সিলিন্ডার লিক হয়ে আগুন লেগে যায়। রান্নাঘর থেকে মুহূর্তের মধ্যে আগুন বিভিন্ন রুমে ছড়িয়ে পড়ে। ওই সময় বিভিন্ন রুমে থাকা বাংলাদেশীরা তাড়াহুড়ো করে বেরিয়ে আসলেও ৭ বাংলাদেশীর গায়ে আগুন লেগে যায়। আগুনে লেলিহান শিখায় তাদের শরীরের অধিকাংশ অংশই জ্বলসে যায়। খবর পেয়ে অগ্নিনির্বাপক কর্মীরা দ্রুত এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে এনে তাদের উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সালমানিয়া হাসপাতালে প্রেরণ করে। গুরুতর আহত মৌলভীবাজারের জুড়ি উপজেলার উত্তর সাগরনাল গ্রামের মৃত সিদ্দিক মিয়ার কনিষ্ট পুত্র সাজ্জাদ আলী চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৮ আগষ্ট সোমবার ভোর ৬টায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। ৬ ভাই এক বোনের মধ্যে তিনি সবার ছোট। দেশে থাকা সাজ্জাদ আলীর ভাই আব্দুল আজিজের সাথে ফোনে আলাপ করে জানা যায়, সাজ্জাদ আলী ৬ বৎসর পুর্বে বাহরাইনে আসেন। দেড় বৎসর পুর্বে ছুটিতে গিয়ে বিয়ে করেন। ৬মাস পর আবার ছুটিতে তার দেশে যাওয়ার কথা ছিল। তার ৭মাসের একশিশু সন্তান রয়েছে। নিহতের অপর ভাই আব্দুল নুরসহ বাকীরা চিকিৎসাধীন অবস্থান সালমানিয়া হাসপাতালে রয়েছেন । এ ব্যাপারে অগ্নীদগ্ধ রিয়াজের ভাই জানান, প্রতিদিনের মত কাজ শেষে রান্না করার সময় হঠাৎ করে গ্যাস সিলিন্ডার থেকে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। মুহুর্তের মধ্যে পুরো ঘরে আগুন লেগে গেলে রুমে থাকা অন্যান্যরা তাড়াহুড়ো করে বের হয়ে আসেন। আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে সাজ্জাদ আলী , রিয়াজ , শামিম আহমদ, আব্দুরনূর, নুরুল ইসলাম, ফয়জুর রহমান ও আব্দুল শহীদের গায়ে আগুন লেগে যায়। খবর পেয়ে অগ্নীনির্বাপক বাহীনি এসে দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রনে আনেন এবং আহতদের উদ্বার করে হাসপাতালে প্রেরন করে। হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, নিহত সাজ্জাদ আলীর শরীরের প্রায় ৯৫ভাগ, রিয়াজের ৮০, শামিম আহমদের ৭৫, আব্দুল শহীদ ৩০, আব্দুল নূর, ফয়জুর রহমান ও নুরুল ইসলাম ১০ ভাগ করে পুড়ে গেছে। তারা সকলেই মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার ও জুড়ী উপজেলার বলে প্রাথমিক ভাবে জানা যায়।এদিকে বাহরাইন জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সভাপতি জনাব কয়েছ আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক বশির আহমদ ঘঠনা স্হল পরিদর্ষন করেন এবং বাংলাদেশে লাশ প্রেরন সহ সকল প্রকর সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন । খবর পেয়ে রবিবার বাংলাদেশ দূতাবাসের শ্রম সচীব মহিদুল ইসলাম ও জনকল্যান প্রতিনিধি তাজ উদ্দীন সিকান্দার আহতদের সালমানিয়া হাসপাতালে দেখতে যান এবং তাদের চিকিৎসার খোজ খবর নেন। তাজ উদ্দীন সিকান্দার জানান, আগুনের সুত্রপাতের তদন্ত করা হচ্ছে। তাছাড়া তাদের নিয়োগ দাতাকে তলব করা হয়েছে। নিহতের লাশ আইনানুগ সকল ব্যবস্থা শেষে দ্রুত দেশে পাঠানো ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। বাকী আহতদের চিকিৎসার ব্যাপারে দূতাবাস সার্বক্ষনিক খোজ খবর রাখছে ।

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now