শীর্ষ শিরোনাম
Home » আর্ন্তজাতিক » ইতালিতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৬০, নিরাপদে বাংলাদেশিরা

ইতালিতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৬০, নিরাপদে বাংলাদেশিরা

italypic-1_125377_0
ডেস্ক রিপোর্ট:
ইতালির মধ্যাঞ্চলে গতকাল বুধবার ভোরে ছয় দশমিক দুই মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৬০ জনে দাঁড়িয়েছে। নিহতদের অধিকাংশই শিশু। তাছাড়া আরো দুই শতাধিক মানুষ ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে আছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় কর্মকর্তারা। আহত হয়েছে ৩৬৮ জন।

চার হাজার ৩০০ জনের বেশি উদ্ধারকর্মী আধুনিক সরঞ্জামাদি নিয়ে ভূমিকম্পন এলাকায় তাদের উদ্ধার তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে।

ইতালিতে বসবাসকারী প্রায় দেড় লাখ বাংলাদেশির কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ইতালিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আবদুস সোবহান শিকদার।

তিনি বলেন, ‘এখানকার পররাষ্ট্র ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাথে আমরা সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছি । তারা আমাদের যেমনটা জানিয়েছেন, এখন অবধি বাংলাদেশের কোন নাগরিক হতাহত হবার তথ্য তাদের কাছে নেই। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলো ও তার আশপাশে কিছু বাংলাদেশিদের বসবাস আছে। তবে তাদের কারো হতাহত হবার খবর বেসরকারিভাবেও আমরা এখনো পাইনি।’

যুক্তরাষ্ট্রের জিওলজিক্যাল সার্ভের (ইউএসজিএস) হিসাব অনুযায়ী, রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৬ দশমিক ২। এর আঘাতে লন্ডভন্ড হয়ে গেছে পার্বত্য এলাকার বেশ কিছু গ্রাম।

মধ্যাঞ্চলের উমব্রিয়া, মার্খে এবং লাজিও অঞ্চলে ভূমিকম্প ব্যাপকভাবে আঘাত হানে। এই অঞ্চলগুলোতে ২০০৯ সালেও ভূমিকম্প হয়েছিল। সরকারি বাহিনী জন সুরক্ষা ইউনিটের (সিভিল প্রোটেকশন ইউনিট) জরুরি বিভাগের প্রধান ইম্মাকোলাতা পোস্তিগ্লোনি বলেন, ‘এখনো অনেক লোক নিখোঁজ রয়েছেন। অনেকেই আটকা পড়ে আছেন।’ প্রাচীন শহর আমাত্রিচে ও কাছের আকুমোলিতেই বেশি হতাহতের ঘটনা ঘটেছে।

গতকালের ভূমিকম্পটি ২০০৯ সালের পর ইতালির সবচেয়ে বড় ভূমিকম্প। ওই বছর লা আকুইলা শহরে ভয়াবহ ভূমিকম্পে ৩০০ মানুষ নিহত হয়। গতকাল যে অঞ্চলে ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে তা লা আকুইলার দক্ষিণে।

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now