শীর্ষ শিরোনাম
Home » রাজনীতি » বিএনপির দফতরে নাজেহাল জোটের শরীক দলের নেতৃবৃন্দ

বিএনপির দফতরে নাজেহাল জোটের শরীক দলের নেতৃবৃন্দ

14081087_570406339818866_1267855452_n
অলিদ তালুকদার,সিলেট রিপোর্ট: বিএনপির নবনির্বাচিত দফতর শাখার অব্যবস্থাপনা আর অপরিপক্বতার কারণে বিব্রতকর পরিস্থিতির শিকার হয়েছেন ২০ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ। পরবর্তীতে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয় বলে জানিয়েছেন জোটের একাধিক শীর্ষ নেতা। তারা জানান, রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র নিয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে জোটের শীর্ষ নেতাদেরকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়। এর অংশ হিসেবে তারা বুধবার বিকেলে যথাসময়ে চেয়ারপার্সনের রাজনৈতিক কার্যালয় গুলশানে উপস্থিত হন। কিন্তু তারা সংবাদ সম্মেলনস্থলে উপস্থিত হয়ে বসার জন্য কোন ব্যবস্থা দেখতে না পেয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করতে থাকেন। এসময়ে বিএনপির দফতরের তিনজন সহ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, মনির হোসেন ও মো. বেলাল উপস্থিত ছিলেন। তাদের তত্বাবধায়নেই সংবাদ সম্মেলনের কার্যক্রম সাজানো হয়। এরকম পরিস্থিতিতে বিএনপির মহাসচিব ঘটনাস্থলে এসে নিজেও ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। তিনি তাৎক্ষণিকভাবে জোটের শীর্ষ নেতাদের বিনয়ের সঙ্গে সংবাদ সম্মেলনের পাশের রুমে অপেক্ষা করতে বলেন। এরপর নিজেই তদারিক করে শীর্ষ নেতাদের বসার জায়গা প্রস্তত করেন। সেই সঙ্গে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যবৃন্দের জন্যও বসার আয়োজন করে দেন।
কিন্তু এরপরও জোটের শীর্ষ নেতাদের জেষ্ঠ্যতা অনুযায়ী বসার ব্যবস্থা না করার কারণে খেলাফত মজলিশের মহাসচিব ড. আহমেদ আবদুল কাদের ক্ষুব্ধ হয়ে সংবাদ সম্মেলন ছেড়ে যাওয়ার প্রস্ততি নেন। এ অবস্থায় বিএনপির মিডিয়া উয়িং এর কর্মকর্তা শায়রুল কবির খানের হস্তক্ষেপে ওই নেতার নির্ধারিত আসনে বসার ব্যবস্থা করে দেন।
এসকল ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন শেষে জোটের একাধিক শীর্ষ নেতা অভিযোগ করে বলেন, আনাড়ি দিয়ে এত বড় রাজনৈতিক দলের গুরুত্বপূর্ণ দফতর শাখা চললে এরকম পরিস্থিতি আগামীতেও ঘটবে।
অপর এক নেতা বলেন, বিএনপির সঙ্গে যুগপত্ রাজনীতি আমাদের দীর্ঘদিনের। কিন্তু এরকম উদ্ভট পরিস্থিতে কখনো পড়তে হয়নি। আমরা নিজেরা খুব বিব্রতকর অবস্থার মধ্যে পড়েছিলাম। ভাগ্য ভালো বিএনপির মহাসচিব বিষয়টি অনুধাবন করতে পেরেছেন।

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now