শীর্ষ শিরোনাম
Home » প্রবাস » মীর কাসেম’র ফাঁসির রায়কে কেন্দ্রকরে লন্ডনে আ.লীগ-জামায়াতের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

মীর কাসেম’র ফাঁসির রায়কে কেন্দ্রকরে লন্ডনে আ.লীগ-জামায়াতের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

uk-sylhetreportযুক্তরাজ্যপ্রতিনিধি,সিলেট রিপোর্ট: লন্ডনের আলতাব আলী পার্কে আওয়ামী লীগ ও জামায়াত ইসলামীর ডাকা সমাবেশকে কেন্দ্র করে দুদলের সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। আর্ন্তজাতিক অপরাধ ট্রাইব্রুনাল মীর কাসেম আলীর ফাঁসির রায় বহাল রাখার ঘোষণা দেওয়ার পর, উভয় দলের পক্ষ থেকে লন্ডনের আলতাব আলী পার্কে সমাবেশ ডেকেছিল। সমাবেশের এক পর্যায়ে এ ঘটনা ঘটে।
দুপুর ১ টা থেকে আলতাব আলী পার্কের শহীদ মিনার দখলে নেয় যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ, লন্ডন মহানগর আওয়ামীলীগ, মহিলা লীগ, প্রজন্ম একাত্তরসহ আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা। তবে জামায়াত ইসলামীর ইউরোপের মুখপাত্র আবু বকর মোল্লাহসহ যুক্তরাজ্যের নেতাকর্মীরা মূলত সেইভ বাংলাদেশ এবং যুক্তরাজ্য বিএনপির সভাপতি এম এ মালেক বিক্ষোভে যোগ দিয়েছেন সিটিজেন ম্যুভমেন্ট নামে হিউম্যান রাইটস সংগঠনের ব্যানারে।

সমাবেশ চলাকালে দলীয় শ্লোগানে সীমাবদ্ধ থাকলেও বিকেল গড়িয়ে ঘড়ির কাটা আনুমানিক সাড়ে তিনটার দিকে বোতল ছোড়ার মধ্য দিয়ে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এসময় উভয় রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা একে অন্যের দিকে তেড়ে আসলে পুলিশ ও দলের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ তাদের নিবৃত করেন। আওয়ামী লীগের তরফ থেকে বলা হয়েছে, তাদের উদ্দেশ্যে জামায়েতের কর্মীরা বোতল ছুড়ে মারায় উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। অন্যদিকে জামায়েতের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তাদের সমর্থকদের উদ্দেশ্য করে আওয়ামী লীগের কর্মীরা আগে বোতল ছুড়েছে। পরে লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

জামায়াতের সমাবেশ:

বিকাল সাড়ে তিনটার মধ্যে উভয় রাজনৈতিক দলের কর্মসূচি শেষ করার কথা থাকলেও বিকেল ৪ টা পর্যন্ত কেউই আলতাব আলী পার্ক ছেড়ে না যাওয়ায় উত্তেজনা বাড়তে থাকে। যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ ফারুক লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশকে বলেন, ‘জামায়েতের কর্মীরা মাঠ ত্যাগ না করা পর্যন্ত তারা শহীদ মিনার ছেড়ে যাবেন না। জাতির এই অহংকারের প্রতীক শহীদ মিনারে জামায়েত কর্মীদের প্রবেশের কোনও সুযোগ তারা দেবেন না।’ অন্যদিকে বিএনপির সভাপতি এম এ মালেক বলেন, ‘তারা আওয়ামী লীগের চোখ রাঙানোকে ভয় পান না। যেখানেই আওয়ামী লীগ সেখানেই তাদের প্রতিহত করা হবে।’ খুব শিগগিরই লন্ডনে শেখ হাসিনা আসবেন, সেখানেও তাকে প্রতিহত করা হবে বলে চ্যালেঞ্জ ছুড়েছেন বিএনপির যুক্তরাজ্য শাখার সভাপতি।

পরে লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশের পক্ষ থেকে অতিরিক্ত পুলিশ এসে উভয় রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দের সাথে কথা বললে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। বিকাল সোয়া চারটায় উভয় রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা আলতাব আলী পার্ক ত্যাগ করে।79c26590f3a9078fef7b36993e67b861-57c65cac37191

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now