শীর্ষ শিরোনাম
Home » জাতীয় » ‌”এনা পরিবহন” বন্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় !

‌”এনা পরিবহন” বন্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় !

enaparibahan-sylhetreportসিলেট রিপোর্ট: এবারের ঈদের আগে পরে সড়ক র্দূঘটনায় প্রায় তিন শত জনের প্রাণহানি ঘটেছে, আহতের সংখ্যা হাজারের কাছাকাছি। মহাসড়কে যেনো মৃত্যুর মিছিল ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে।মানুষ চরম ভোগান্তি আর অশান্তি নিয়ে গন্তব্যে ফিরেছেন। ঈদ পরবর্তী সময় গত শুক্রবার ফাঁকা সড়কে তিনটি দুর্ঘটনায় ১৭ জনের প্রাণহানি হয়েছে। আহত হয়েছেন ৩৪ জন। সবচেয়ে বেশী মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়। মাইক্রোবাসে করে নববধূর বাড়ীতে যাবার পথে বাসের ধাক্কায় নিহত হয়েছেন কমলগঞ্জের এক বর, বরের বাবা, দুই ভাইসহ ৮জন। আহত হয়েছেন চারজন। এ নিয়ে বর ও কনের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম।

সাম্প্রতিক সময়ে এনা পরিবহনের এইসব বড় বড় দূর্ঘটনার জন্য সোশ্যাল মিডিয়া্য এনা পরিবহনের রোড পারমিট বাতিল করার দাবী করছেন ব্যবহারকারীরা।enaএনা পরিবহন কে ”না” বলুন এমন শ্লোগানে ভর পুর সোশ্যাল মিডিয়া।তাদের দাবি এনা রাস্তায় চললে তারা মনে করে বিমানে চলতেছে, অদক্ষ  ড্রাইভারদ্বারা বেপরোয়াভাবে পরিচালিত হচ্ছে এনা পরিবহণ।যার ফরে বিভিন্ন সময়ে বড় বড় ধরণের দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে সাধারণ নিরীহ মানুষ।তাদের প্রাণও দিতে হচ্ছে।
যেখানে সাধারণ মানুষের জীবন ঝুকিপূর্ণ সেখানে কেন এনা পরিবহন কে বন্ধ করা হবে না এমন প্রশ্ন ছুড়ছেন অধিকাংশে।সাম্প্রতিক সময়ে সবচেয়ে বড় দূঘর্টনাটি এনা পরিবহন দ্বারা গঠিত হয়েছে।
সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনাকারী সাধারন মানুষ, শিক্ষার্থী, শিক্ষক, প্রবাসী তারা এরকম একটি পরিবহনকে বন্ধ করতে আহ্বান জানান।
মুন্সীবাজার ইউনিয়নের রুপসপুর গ্রামের সরফর মিয়া তার ছেলে আবু সুফিয়ানের বিয়ে দিতে বরযাত্রী নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলের উদ্দেশ্যে মাইক্রোবাসে রওয়ানা হন। সকাল ১০টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিজয়নগর উপজেলার শশই এলাকায় বিপরীত দিক থেকে আসা এনা পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাসের সংঘর্ষ হয়। ঘটনাস্থলেই সাতজনের মৃত্যু হয়। পরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে আরও একজন মারা যান।
নিহতরা হলেন বর আবু সুফিয়ান (২৫), বরের বাবা সরফর মিয়া (৬২), বরের এক ভাই মুর্শেদ (২৫), ফয়ছল (২৫), একই গ্রামের হাজী আব্দুল হান্নান (৬৫), হাবিবুল (২২), আলী হোসেন (২৫) ও মুক্তার মিয়া (৪২)। দুর্ঘটনার পর ওই সড়কে প্রায় একঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে। পুলিশ এনা পরিবহনের বাসটি আটক করেছে। চালক ও হেলপার পলাতক রয়েছে। অনুসন্ধানে জানাগেছে, ড্রাইভার কয়েক দিনের ক্লান্তি নিয়ে বেপরোয়া ভাবে গাড়ী চালিয়ে যাচ্ছিলো।

এদিকে,
দেশব্যাপী অব্যাহত সড়ক র্দূঘটনা বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে এবং মৌলভীবাজার-বিবাড়ীয়া রোটে মাওলানা আবু সুফিয়ান নিজামসহ সড়ক র্দুঘটনায় নিহত ৮ জনের পরিবারকে (আর্থিক) ক্ষতিপূরণের দাবীতে শুক্রবার সিলেটে  মানববন্ধন কর্মসুচির ডাক দিয়েছে মাদানী কাফেলা বাংলাদেশ ।

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now