শীর্ষ শিরোনাম
Home » শীর্ষ সংবাদ » সিসিক প্যানেল মেয়র সালেহ ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা তাজ মুখোমুখি, থানায় ডায়েরি

সিসিক প্যানেল মেয়র সালেহ ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা তাজ মুখোমুখি, থানায় ডায়েরি

salih-taj-sylhetreportসিলেট রিপোর্ট:  প্যানেল মেয়র সালেহ ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা তাজ উদ্দীনের অনুসারীদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। একজন অন্রজনের মুখোমুখি অবস্থানে। জানাগেছে, সিলেট সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র (দ্বিতীয়) ও ১০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সালেহ আহমদ’র বিরুদ্ধে সিলেট কোতোয়ালি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি তাজ উদ্দিন তাজ।
বুধবার রাতে তিনি সাধারণ ডায়েরিটি (নম্বর ৩৭৪) করেন। এতে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি তাজ উদ্দিন তাজ উলে­খ করেছেন- ১০ ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়রের বিরুদ্ধে ঘাসিটুলা জামে মসজিদের জমি দখলের ঘটনায় এলাকার মুসলি­গণ ও যুব সমাজ প্রতিবাদ জানিয়ে আসছেন। এটি প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় প্রকাশিত হয়েছে।

তাজ উদ্দিন তাজ দাবি বলেন-  ‘‘আমি মসজিদের জায়াগা দথলকারিকে অন্তর থেকে ঘৃণা করি। কিন্তু আমি জামে মসজিদ কমিটির কোন সদস্য নই। এবং ঘাসিটুলা বড় জামে মসজিদের জায়গা ভূমিখেকোদের হাত থেকে রক্ষার্থে যেসব প্রতিবাদ হয়েছে। সেগুলোর কোনটির সাথে আমার সংশ্লিষ্টতা নেই।’’

তিনি আরোও উলে­খ করেছেন – ‘‘কিন্তু বুধবার বিকাল ৫ টার দিকে কাউন্সিলর সালেহ আহমদ আমার ও আমার ছোট ভাই ইফতে কামরুল হাসান (তায়েফ) বিরুদ্ধে একটি মিছিল সমাবেশ করে। সমাবেশে প্রকাশ্যে সালেহ আহমদ ও সহযোগিরা প্রকাশ্যে আমার ও আমার ভাইয়ের বিরুদ্ধে বিষোদগার করেছে। প্রকাশ্যেই আমাদের গুম, খুন করার হুমকি দেওয়া হয় সমাবেশে।’’

তাজ বলেছেন- এলাকাবাসী ইতিমধ্যেই বুঝে ফেলেছেন জনপ্রতিনিধি ও জনদরদী ভাব-মূর্তির আড়ালে সালেহ আহমদ একজন ভূমিদস্যু।

বুধবার বিকালে প্রকাশ্যে স্লোগান দিয়ে নিজের সম্মানহানি হয়েছে সাধারণ ডায়েরিতে উলে­খ করেছেন সাবেক কাউন্সিলর পদপ্রার্থী তারেক উদ্দিন তাজের। হত্যা ও গুমের হুমকি নিয়েও নিরাপত্তাহীতায় ভুগছেন। এ ব্যাপারে কোতোয়ালি মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরির মাধ্যমে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি করেছেন।

সিলেট রিপোর্ট/সু-সিভি ০৬-১০-২০১৬
Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now