শীর্ষ শিরোনাম
Home » নারী ও শিশু » নেত্রকোণায় একদিনে নিখোঁজ পাঁচ শিক্ষার্থী

নেত্রকোণায় একদিনে নিখোঁজ পাঁচ শিক্ষার্থী

ডেস্ক রিপোর্ট:
নেত্রকোণার পূর্বধলায় একটি উচ্চ বিদ্যালয় ও একটি মাদ্রাসার পাঁচ শিক্ষার্থী  একদিনে নিখোঁজ হওয়ার খবর জানিয়েছে পুলিশ। ১ অক্টোবর থেকে ওই শিক্ষার্থীরা নিখোঁজ রয়েছে জানিয়ে তাদের পরিবারের সদস্যরা পূর্বধলা থানায় পৃথক পৃথকভাবে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

নিখোঁজ শিক্ষার্থীরা হচ্ছে পূর্বধলার শ্যামগঞ্জ বাজার সংলগ্ন মহিষবেড় গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে আরিফ মিয়া (১৪), ফরিদ মিয়ার ছেলে বেলাল হোসেন (১৫), হেলাল উদ্দিনের ছেলে নয়ন মিয়া (১৪), আইনুদ্দিনের ছেলে মো. হৃদয় (১৩) ও হামেদ আলীর ছেলে রবিকুল ইসলাম (১৩)। এদের মধ্যে বেলাল হোসেন শ্যামগঞ্জের শালদীঘা তালি-ই-মাটি ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসায় অষ্টম শ্রেণিতে এবং নয়ন মিয়া একই মাদ্রাসায় ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ে। আর অপর তিনজন শ্যামগঞ্জের জালশুকা-কুমুদগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র।  শনিবার বিষয়টি নিশ্চিত করে পূর্বধলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুর রহমান জানান, গত বুধবার থানায় জিডি করা হয়েছে। ওসি জানান, এই পাঁচজনের মধ্যে বেলাল ও নয়ন সম্পর্কে আপন চাচাত ভাই। আর আরিফ তাদের ভাতিজা। অন্য দুজনের বাড়িও তাদের পাশাপাশি। নিখোঁজ হওয়া শিক্ষার্থী বেলালের সঙ্গে একটি মুঠোফোন ছিল। নিখোঁজের দিন ও এর পরদিন ওই নম্বরে একাধিকবার কল করা হলেও কেউ রিসিভ করেনি। পরবর্তী সময় থেকে তার ফোন নম্বরটির সংযোগ বন্ধ রয়েছে।

ওসি নিখোঁজ শিক্ষার্থীদের পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে জানান, গত ১ অক্টোবর নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কথা বলে তারা বাড়ি থেকে বের হয়। তারপর আর বাড়ি ফেরেনি।

তিনি আরও জানান, ওই শিক্ষার্থীরা নিখোঁজ হওয়ার দিন শ্যামগঞ্জ রেলস্টেশন থেকে ময়মনসিংহগামী একটি ট্রেনে ওঠেছে বলে স্থানীয়রা দেখতে পেয়েছেন। শিক্ষার্থী বেলালের সঙ্গে থাকা মুঠোফোনের নম্বরটি ট্র্যাকিং করে ঢাকার কাকরাইল এলাকায় একটি মসজিদে অবস্থান করছে বলে প্রাথমিকভাবে তথ্য পাওয়া যায়। পরবর্তীসময় সেখানে তাদের স্বজনদের পাঠানো হলেও সন্ধান মেলেনি।

জঙ্গি সম্পৃক্ততা কিংবা অপহরণের শিকার হওয়ার মতো ঘটনা হয়েছে কি না তা তদন্ত চলছে বলে জানান ওসি।

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now