শীর্ষ শিরোনাম
Home » শীর্ষ সংবাদ » খাদিজার উপর হামলার বিচার দাবিতে আয়োজিত সমাবেশে আ’লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ

খাদিজার উপর হামলার বিচার দাবিতে আয়োজিত সমাবেশে আ’লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ

alig-jpeg8-10-16সিলেট রিপোর্ট: কলেজ ছাত্রী খাদিজা বেগম নার্গিসের উপর ছাত্রলীগ নেতার হামলার বিচার দাবিতে সমাবেশে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘাতকারী দুই গ্রুপই আওয়ামী লীগের স্থানীয় রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। এতে সায়মন আহমদ নামে এক যুবক আহত হয়েছেন। তিনি টুকের বাজার এলাকার বাবুল মিয়ার ছেলে। তাকে ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সংঘর্ষের ফলে প্রায় ১৫ মিনিট সমাবেশের কার্যক্রম বন্ধ ছিলো। পরিস্থিতি শান্ত করে পরে আবার সমাবেশ শুরু হয়।

জানা যায়, (৮ অক্টোবর) শনিবার বিকেলে সিলেট সদর উপজেলার সচেতন নাগরিক সমাজের উদ্যোগে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের তেমুখীতে প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করা হয়। খাদিজার উপর হামলাকারী বদরুল আলমের ফাঁসির দাবি জানানো হয় এই সমাবেশ থেকে।
সমাবেশে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ ছাড়াও খাদিজা বেগমের বাবা মাসুক আহমদ উপস্থিত ছিলেন।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, বিকেল ৫ টার দিকে সমাবেশ মঞ্চে বক্তব্য রাখছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক। এসময় মঞ্চের সামনে দুই পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। তারা চেয়ারও ভাঙচুর করে। জালালাবাদ থানা পুলিশ জানায়, আওয়ামী লীগ নেতা আফতাব সিরাজীর সাথে সায়মন আহমদের সংঘর্ষ বাঁধে। এতে সায়মন আহত হন। সায়মন স্বেচ্ছাসবেক লীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। পরে সিনিয়র নেতারা মঞ্চ থেকে নেমে এসে সংঘর্ষ থামান। সংঘর্ষের কারণে প্রায় ১৫ মিনিট সমাবেশ বন্ধ ছিলো। পরে আবার সমাবেশ শুরু হয়। তবে জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আক্তার হোসেন জানান, এলাকাভিত্তিক বিরোধ থেকে সমাবেশে দুই পক্ষে উত্তেজনা দেখা দেয়। দুইপক্ষই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত বলে নিশ্চিত করেছেন তিনি
সিলেট সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আশফাক আহমদ সংঘর্ষের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ব্যক্তিগত বিরোধের কারণে একটু ঝামেলা হয়েছিলো। এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।
সিলেট রিপোর্ট/সু-সিটুডে ৮-১০-২০১৬

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now