শীর্ষ শিরোনাম
Home » স্বাক্ষাৎকার » প্রস্ফুটিত এক প্রতিভার নাম হুমায়ন কবির লস্কর কয়েস

প্রস্ফুটিত এক প্রতিভার নাম হুমায়ন কবির লস্কর কয়েস

kআব্দুল্লাহ মাহফুজ : তোমাকেই যেন ভালবেসেছি শতরূপে শতবার
জনমে জনমে যুগে যুগে অনিবরে। এই কবিতার
লাইনগুলো মনে পড়ছে শুধু হুমায়ন কবির লস্কর
কয়েস ‘র স্মরণে। কারণ কবিতার লাইনগুলোর
মতই চলছে তার জীবন। তিনি এলাকার গরীব
দুঃখী, আবাল, বৃদ্ধ বনিতার বন্ধু
এবং জকিগঞ্জের গোটারগ্রামের লস্কর
পরিবারের কৃতি সন্তান।

এই সমাজে বিচিত্র মানুষের বসবাস। ‘ সম্রাট
নেপোলিয়ন কয়েক শতাব্দী আগে তার সেনাপতি
সেল্যুকাসকে বলেছিলেন সেল্যুকাস কত বিচিত্র
এই দেশ। কথাটি আজও এ দেশের প্রতিটি স্থরে
অক্ষরে অক্ষরে মিলে যায়। বেশির ভাগ মানুষ
কেবল নিজের স্বার্থকে বড় করে দেখে। তবে
এমন মানুষও আছে যে নিজের কথা ভাবে না।
অহর্নিশ দেশ ও সমাজ ব্যাবস্থাকে নিয়ে ভাবে।
এদেশের গরিব, নির্যাতিত অসহায় মানুষের সুখ,
দুঃখের কথা প্রতিনিয়ত ভাবে। ঠিক তেমনি
একজন মানুষ হুমায়ন কবির লস্কর কয়েস। ‘
হাটি হাটি পা করে পরিশ্রম, সেবা মনন ও
অধ্যাবসায়ের মাধ্যমে কষ্টের সিড়ি বেড়ে
দুরদৃষ্টি স্বচ্ছতা জ্ঞানের গভীরতা,
দেশাত্ববোধ ও মানবপ্রেমকে সম্বল করে আর
আত্মবলিয়ানের বলিষ্ঠ অক্লান্ত পরিশ্রম
সততা, নিষ্ঠা, দক্ষতা, প্রদর্শন করে যারা
জীবনের অভিষ্ট লক্ষকে পৌছে ইতিহাস সৃষ্টি
করে তাদের মধ্যে একজন হুমায়ন কবির লস্কর
কয়েস।

তিনি ১৯৭২সালের জুন মাসে বাংলার ঐতিহ্যবাহী
৩৬০ আউলিয়ার পূণ্যভূমি সিলেট জেলার
জকিগঞ্জ উপজেলার ঐতিহ্যবাহী লস্কর
পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা- মরহুম
আতাউর রহমান লস্কর মাতা মরহুম মোছাম্ম্মৎ
আনোয়ারা বেগম চৌধুরী। তিনি পারিবারিক
আবহাওয়াতেই তার মার্জিত আচরণ- আচরণের
শিক্ষা নেন। পিতা এবং গৃহিনী মাতার মায়া
মমতাময় সন্তান হিসেবে সকলের আরো যত্ন
এবং বিশেষ তত্তাবধানে তার শৈশব পার করেন,
হুমায়ন কবির লস্কর কয়েস । ‘ অনেক ঘাত-
প্রতিঘাত পেরিয়ে ষড়যন্ত্রে জাল বেয়ে হুমায়ন
কবির লস্কর কয়েস মানবসেবার মত মহৎ কাজে
এখনও অটল।

আর মানব সেবা করতে যেন তার ভালই লাগে।
মাঝারি গড়ন বুদ্ধিদীপ্ত চোখ আর হাসির রেশ
ছড়ানো সর্বস্তরের মানুষের সাথে মেলামেশায়
পারঙ্গম একজন পরিপাটি মানুষ। প্রথম
দেখাতেই যাকে একেবারে আপন মনে হয়। প্রাণ
খোলা ব্যবহার আর অকৃত্রিম ভালোবাসায় জয়
করেন এক অসম্ভবকে। যারা এক বার সান্নিধ্যে
আসেন, তারা কিছুতেই ছাড়তে চান না এই মিশুক
মানুষটিকে। মানুষকে আপনকরে এক আশ্চর্য
মোহনীয় মমতা আছে এই লোকটির মধ্যে, কি
পরিবার, কি নিজের পেশাগত অঙ্গন অথবা
সামাজিক পরিমন্ডলে সকলের প্রিয় ঈর্ষনীয়
জনপ্রিয় এই ব্যক্তিটি হুমায়ন কবির লস্কর
কয়েসের মত কত প্রতিভা পরে আছে পৃথিবীর
মাঝে সেগুলোর খবর কেউ জানেন না। তারা
পৃথিবীতে নিরবে আসে নিরবেই চলে যায়। আমরা
তাদের খোজে বের করার চেষ্টাও করি না। বিন্দু
পরিমাণ যদি এসব প্রতিভাবানদের খোজ খবর
রাখার চেষ্টা করতাম তাহলে আমাদের এই দেশ
পথিবীর উন্নত দেশগুলোর কাছাকাছি পৌছে যেত।
গ্রাম বাংলার আনাচে-কানাচে এরকম কতই না
প্রতিভামুখী গোলাপের কলি রয়েছে, তা লিখে শেষ
করা যাবে না। আর এসব গোলাপের কলি এই
পৃথিবীকে প্রস্ফুটিত হয়ে গন্ধময় সুগন্ধ দেয়ার
জন্য এই পৃথিবীতে আগমন করেছে।

হুমায়ন কবির লস্কর কয়েছর  নানাভাবে
চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন, সমাজে শিক্ষা বিস্তারের
জন্যে। এ লক্ষ্যেই ২০০৬ সালে প্রতিষ্টা করেন
“আতাউর রহমান লস্কর স্মৃতি পাঠাগার।”
গোটারগ্রাম পয়েণ্টে অবস্থিত এ পাঠাগার থেকে
উপকৃত হচ্ছে এলাকার দরিদ্র শ্রেণীর ছাত্র
ছাত্রীরা।কৌমি মাদ্রাসার ছাত্রদেরকে শিক্ষার
প্রতি আগ্রহী করে তুলতে, বৃত্তিপ্রদানের
মাধ্যমে ছাত্রদের সহযোগিতা করতে ২০০৮সালে
গঠন করেন “জকিগঞ্জ তা’লিমুল কুরআন
ফাউন্ডেশন।” এ ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে
প্রতিবছর বৃত্তি পরীক্ষা নিয়ে বৃত্তিপ্রাপ্ত
ছাত্রদের পুরস্কৃত করে যাচ্ছেন। এতে ছাত্ররা
শিক্ষার প্রতি আগ্রহী হচ্ছে।

জকিগঞ্জ-কানাইঘাটের পাড়া মহল্লার
ছাত্রদেরকে সাংবাদিকতার প্রতি আগ্রহী করতে
এবং বস্তুনিষ্ট সত্য সংবাদ প্রকাশের লক্ষ্যে
গড়ে তুলেন মাসিক “সীমান্ত কুড়ি” এবং
সাপ্তাহিক “জকিগঞ্জ- কানাইঘাটের ডাক” নামে
দুটি পত্রিকা। এর মাধ্যমে একদিকে নতুন
সাংবাদিক গড়ে তোলার চেষ্টা যেভাবে করছেন
অপরদিকে বস্তুনিষ্ট সত্য সংবাদ প্রচার করে
যাচ্ছেন আপোষহীনভাবে।

আর তেমনিই এক গোলাপের কলির ন্যায়
প্রস্ফুটিত এক প্রতিভার নাম হুমায়ন কবির
লস্কর কয়েস । তারা নিরবে নিভৃতে বহুমুখি
প্রতিভা নিয়ে কাজ করলেও আমরা তাদের
সুনামকে পত্রিকার পাতায় তুলে ধরার মতো মন
মানসিকতার পরিচয় দিতে পারিনি। এ যে আমাদের
কত লজ্জার বিষয় তা আর বলবো কি। তাই আজ
লিখা- এই প্রতিবেদনকে হুমায়ন কবির লস্কর
কয়েস জানান, মানব সেবা পরম ধর্ম। এই
উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে যারা মানব সেবা করে
তারাই প্রকৃত মানুষ। একজন মানুষ জনসেবার
মধ্যে দিয়েই আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন করতে
পারে। আর সেসব ব্যক্তি সকল লোভ-লালসা,
অর্থ ও মোহের উর্ধে থেকে মানব সেবা করে
গেছেন তারাই মহামানব হয়ে মানুষের হৃদয়ে
চিরস্মরণীয় হয়ে আছেন। ‘ দলবত নির্বিশেষে
সকলেই শ্রদ্ধা করে ভালোবাসে। শুধু মানুষের
সন্তুষ্টি নয় সৎকর্মের মধ্যে দিয়েই একজন
মানুষ আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন করে, আর
তারাই প্রকৃত মানুষ ও মহামানব।

মোটকথা সৌদি প্রবাসী জকিগঞ্জ উপজেলা
জমিয়তের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক
মাওলানা হুমায়ন কবির লস্কর কয়েছ সাহেব
একজন আদর্শবান, অনুসৃত সমাজসেবী ও
শিক্ষানুরাগী। আল্লাহ তায়ালা তাঁকে আরও বেশি
করে জনকল্যাণে কাজ করার তাওফিক্ব দান
করুন। এইসব দানকে তাঁর জন্যে নাজাতের
ওসিলা হিসেবে কবুল করুন। আমীন!

লেখক: আব্দুল্লাহ মাহফুজ,
দ্বাদশ শ্রেণি, ইছামতি ডিগ্রি কলেজ।

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now