শীর্ষ শিরোনাম
Home » কলাম » সিলেট সুফিয়ান চৌধুরীকে যেভাবে দেখেছেন এমপি কেয়া চৌধুরী

সিলেট সুফিয়ান চৌধুরীকে যেভাবে দেখেছেন এমপি কেয়া চৌধুরী

suসিলেট রিপোর্ট: সিলেট আওয়ামী লীগ পরিবার আজ একজন অভিভাবক হারালো। আব্দুজ জহির চৌধুরী সুফিয়ান বর্ষীয়ান নেতা ও সিলেট আওয়ামী লীগের দুর্দিনের কাণ্ডারি। যার সবচেয়ে বড় পরিচয়, তিনি একজন সজ্জ্বন ব্যক্তিত্ব ও পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবীদ।

সিলেটের মহিলা এমপি হওয়ার বেশ আগ থেকেই সুফিয়ান চাচার সাথে আমার যোগাযোগ ছিল। বিশেষ করে, ভাষা আন্দোলনে সিলেটের ভূমিকা, মহান মুক্তিযুদ্ধে সিলেটবাসীর ত্যাগ- এসকল বিষয়ে তার সমৃদ্ধ অভিজ্ঞতা প্রিয় মানিক ভাইয়ের মেয়ে হিসেবে সহসাই আমাকে তার কাছে যাবার ও তথ্য পাবার পথটি সুগম করেছে।

এসব ক্ষেত্রে কখনই তাকে নিজেকে জাহির করা বা অতিরঞ্জিত তথ্য প্রদানে অতিউৎসাহী হতে দেখিনি। ‘চেতনায় ৭১ হবিগঞ্জ’ এর একজন তথ্য সংগ্রহকারী হিসেবে সুফিয়ান চাচার বাসায় আমি যতবার গিয়েছি, তিনি এবং চাচীর কাছ থেকে মহান মুক্তিযুদ্ধে আমার প্রয়াত পিতা কমান্ডেন্ট মানিক চৌধুরীর অনেক দূর্লভ ও অপ্রকাশিত তথ্য আমি জানতে পেরেছি।

হবিগঞ্জ-সিলেট এর দায়িত্বপ্রাপ্ত মহিলা এমপি হিসেবে দায়িত্ব নেবার পর, সিলেট জেলা পরিষদের প্রশাসক হিসেবে সুফিয়ান চৌধুরীর কাছ থেকে আমি যে সহযোগিতা পেয়েছি, এক কথায় তা অতুলনীয়। আওয়ামীলীগের একজন কর্মী হিসেবে সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুজ জহির চৌধুরী সুফিয়ানের সাথে আমার যতবার দেখা করার সুযোগ হয়েছে, ততবারই আমি বিস্ময়ের সাথে একটি বিষয় আবিস্কার করেছি সেটি হল, একজন আওয়ামী লীগের সিনিয়র বর্ষীয়ান নেতা ও মাঠ পর্যায়ের কর্মীর মাঝে ব্যক্তি সম্পর্কের গভীর দৃঢ় সম্পর্ক।

অর্থাৎ, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি তার দলের প্রতিটি কর্মীকে যেভাবে সম্মান এবং মূল্যায়ন করতেন, আন্তরিক ভালবাসার বন্ধনে যেভাবে তিনি আবদ্ধ করতেন, তার মধ্য দিয়েই নেতা সুফিয়ান চৌধুরীর প্রতি কর্মীদলের আস্থা, শ্রদ্ধা, তথা বিশ্বাস স্থাপনে খুব বেশি সময় নিতে হত না আওয়ামীলীগ আদর্শের নেতাকর্মীকে।

সিলেট জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুজ জহির চৌধুরী সুফিয়ান তার গোটা জীবন দিয়ে একজন সজ্জন, নির্লোভ ও নিবেদিত রাজনীতিবিদ হিসেবে, আমাদের সামনে একটি টেকসই অবস্থান তৈরি করে গেছেন।

আমরা যেন ব্যক্তি সুফিয়ান চৌধুরীর মহৎ গুণগুলো আদর্শ হিসেবে আমাদের জীবনে প্রতিষ্ঠিত করতে পারি। তবেই কর্মী হিসেবে, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সুফিয়ান চৌধুরীর প্রতি আমাদের প্রকৃত শ্রদ্ধা নিবেদন সার্থক হবে।

সুফিয়ান চাচার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে, শুধু এইটুকুই বলি- ‘সুফিয়ান চাচা আপনি যেখানেই থাকুন, চিরশান্তিও আল্লাহর পূর্ণ সন্তুষ্টিতে জান্নাতবাসী হোন’। -আমিন

লেখক : আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী, সংসদ সদস্য (সিলেট ও হবিগঞ্জ)।

Share Button
Hello

এই ভিডিও প্লে করুন | video play now